Home » COMPUTER » Operating System – ( সংজ্ঞা, কার্যাবলী, প্রকার ) » Time Sharing Operating System

Time Sharing Operating System

Time Sharing Operating System এক সঙ্গে অনেক user কে কোন নির্দিষ্ট computer এর resource ব্যবহার করার সুবিধা করে দেয়। এই ধরনের Operating System এ time slot এর মাধ্যমে computer resource এর access allocate করা যায়।

উদাহরন হিসেবে বলা যায় , কোন mainframe computer এ এক সঙ্গে অনেক user logged on থাকতে পারে, এবং প্রতিটি userই computer এর resource গুলিকে ব্যবহার করতে পারে যেমন – memory, CPU ইত্যাদি। আপাত দৃষ্টিতে user এর মনে হতে পারে শুধু মাত্র সেই CPU টি ব্যবহার করছে কিন্তু তা সম্ভব না। আসলে CPU টি বিভিন্ন user এর মধ্যে share করা থাকে ।

এ থেকেই বোঝা যাচ্ছে Time Sharing Operating System এ CPU কোন একটি নির্দিষ্ট সময়ে একটি কাজই করে কিন্তু CPU এর task এতো frequently switch করে এবং program এর সাথে interact করে যে মনে হয় সেটি একসঙ্গে অনেক কাজ করছে। Time sharing হল multi-programming এর একটি logical extension ।

Time shared operating system এর মধ্যে প্রতিটি action বা order ছোট ছোট ভাগে বিভক্ত থাকে , ফলে প্রতিটি user এর খুব কম CPU time প্রয়োজন হয়। সুতরাং system যখন rapidly এক user থেকে অন্য user এ switch করে প্রতি user এর মনে হয় যে system টি শুধু মাত্র সেই ব্যবহার করছে। কিন্তু আসলে system টি অনেক user এর মধ্যে share করা থাকে।

এই system গুলিতে CPU scheduling এবং multi-programming ব্যবহার করা হয়।

Time shared operating system, multi-programmed operating system এর থেকে অনেক বেশি complex। উভয় খেত্রায়ি memory তে আকাধিক job থাকে , তাই system গুলিতে memory management এবং security থাকা দরকারি।

Time Sharing Operating System

ছবিতে user 5 শুধু active state এ আছে কিন্তু user 1, user 2, user 3, এবং user 4 waiting state এবং user 6 ready state এ আছে।

  1. Active State – অর্থাৎ যে user এর program সেই মুহূর্তে CPU কে control করছে।
  2. Ready State – অর্থাৎ user এর program CPU কে ব্যবহার করার জন্য ready এবং অপেখ্যা রত।
  3. Waiting State – অর্থাৎ user এর program কোন input/output operation এর জন্য অপেখ্যা করছে।